বিকাশের মাধ্যমে ট্রেনের টিকিট কাটার নিয়ম

বর্তমান সময়ের এই ডিজিটাল যুগে লাইনে দাঁড়িয়ে কেউ টিকিট কাটতে চায় না তাই  সবাই সবকিছু অনলাইনে করার চেষ্টা করে । তাই আমরা এখন ঘরে বসে বিকাশ এর মাধ্যমে অনলাইনে ট্রেনের টিকিট কাটতে পারব। তো আজকে এই পোস্টের মাধ্যমে আমরা শিখব বিকাশের মাধ্যমে কিভাবে ট্রেনের টিকেট কাটা হয়। বিশেষ করে আমরা যারা ট্রেনের যাতায়াত করি তারা জানি বা জানেন যে লাইনে বা রেলস্টেশনে টিকিট কাটার সময় কি ঝামেলা পোহাতে হয়। তাই অনলাইনে টিকিট কাটার মাধ্যমে আমাদেরকে ঝামেলা থেকে কিছুটা মুক্তি বাহ স্বস্তি পাওয়া যায়। 

আমরা যাতায়াতের জন্য চাইলেই ঘরে বসে বিকাশ এর মাধ্যমে ট্রেনের টিকিট বুকিং করতে পারি। কিভাবে অনলাইনে টিকিট কাটতে হয় বা কাটার জন্য কি কি করতে হবে তা এ পোস্টের মাধ্যমে আপনারা যাবতীয় সবকিছু পেয়ে যাবেন। ট্রেনের অগ্রিম টিকিট কাটার জন্য আপনার কোন ঝামেলা পোহাতে হবে না। তো চলুন দেখে আসি কিভাবে আমরা বিকাশের মাধ্যমে ট্রেনের টিকিট কাটবো।

বিকাশে ট্রেনের টিকেট

বিকাশে ট্রেনের টিকিট কাটার জন্য আপনার অবশ্যই স্মর্টফোন থাকতে হবে। এবং কি আপনি আপনার ডেস্কটপ বা ল্যাপটপ দিয়েও ট্রেনের টিকেট কাটতে পারবেন। অবশ্যই প্রথমে একটু ঝামেলা হতে পারে কিন্তু একবার যদি আপনি অনলাইনের মাধ্যমে টিকিট কেটে ফেলেন তাহলে পরবর্তীতে আপনি নিজেই খুব সহজে যে কোন টিকিট কাটতে পারবেন বা আপনার জন্য খুব সুবিধা হবে। তাহলে আমরা এখন দেখব কিভাবে আমরা অনলাইনে টিকিট কাটতে হয়। 

বিকাশের মাধ্যমে ট্রেনের টিকিট কাটার নিয়ম 

আপনি যদি বিকাশ অ্যাপ দিয়ে ট্রেনের টিকিট কাটতে চান তাহলে আপনাকে কিছু নিয়ম ফলো করতে হবে। সবকিছুরই একটা নিয়ম আছে যে নিয়ম মেনে কাজগুলো করতে হয়।  তাহলে চলুন দেখে নেই কিভাবে বিকাশের মাধ্যমে ট্রেনের টিকিট কাটা যায়। 

  • প্রথমে আপনাকে বিকাশ অ্যাপ লগইন করতে হবে। 
  • তারপর এর  মধ্যে বিভিন্ন অপশন থাকবে সেখান থেকে আপনার টিকিট সিলেক্ট করতে হবে। 
  • আপনি কয়েকটি অপশন পাবেন বাস, ট্রেন, লঞ্চ, বিমান ইত্যাদি। 
  • তারপর আপনি ট্রেনের অপশনে ক্লিক করবেন। 
  • ট্রেনের অপশনে ক্লিক করার পর আপনাকে বাংলাদেশ রেলওয়ে ওয়েবসাইটে লগইন করতে হবে। 
  • লগইন করার পর আপনার ইমেইল ও ইমেইলের পাসওয়ার্ড চাইবে সাথে আপনার মোবাইল নাম্বার দিতে হবে। এবং আপনি কোন তারিখের টিকিট কাটবেন এবং কোন স্থানে যাবেন। 
  • আপনাকে খেয়াল করতে হবে যে ট্রেনের টিকিট কাটছেন ওই ট্রেনের সিট পাওয়া যাবে কিনা।
  • তারপর আপনার বিকাশ গেটওয়ে নামের একটি অপশন আসবে সেখানে আপনার বিকাশ নাম্বার দিতে হবে। তারপর ট্রেনের যে নির্দিষ্ট পরিমাণ টাকা ওই টাকা টা কেটে নেওয়ার পর আপনার টিকিট কনফার্ম হবে। 

 আপনি প্রথমবার যে সিস্টেমে টিকিট কাটবেন বা বুকিং করবেন ঠিক ওই ভাবেই পরবর্তীতে আপনি  টিকিট কাটতে পারবেন। আশা করি যে আপনারা এখান থেকে সঠিকভাবে টিকিট কাটার নিয়ম গুলো বুঝতে পেরেছেন। এই পোস্টটি পড়ে যদি আপনার ভাল লাগে তাহলে অবশ্যই শেয়ার করবেন এবং যদি কোন ভুল হয়ে থাকে তাহলে কমেন্ট করে অবশ্যই জানাবেন আমি সঠিক তথ্য সংশোধন করার চেষ্টা করব। 

Leave a Comment